BAITUL MAMUR JAME MOSQUE & AL-JAMIATUL ISLAMIA MODINATUL ULUM MADRASHA & DARUL AITAM

বায়তুল মা"মুর জামে মসজিদ ও আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া মদিনাতুল উলুম [মাদরাসা] ও এতিমখানা

যেহেতু আমাদের জামিয়ার শিক্ষাবর্ষের শুরু-শেষ হয় আরবি বৎসর হিসেবে। তাই আরবি শাওয়াল মাস থেকে রমাযান পর্যন্ত শিক্ষাবর্ষ গণনা করা হয়। শাওয়াল মাসের ৬-৭ তারিখের মাঝে মাদরাসা খোলা হয় এবং শা‘বান মাসের ২২-২৫ তারিখের মাঝে মাদরাসা বন্ধ ঘোষণা হয়। সুতরাং আমাদের জামিয়ার নতুন বর্ষ শুরু হয় শাওয়াল মাসে আর শাওয়াল মাসের ৬-৭ তারিখের মধ্যেই আমাদের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়ে যায়। মাদরাসার প্রতিটি বিভাগে ছাত্রদের যেহেতু নির্ধারিত একটি কোটা রয়েছে। তাই সীমিত সময়ের ভিতরেই আমাদের ভর্তি কার্যক্রম শেষ হয়ে যায়। আমাদের জামিয়ায় একজন তালিবুল ইলমের জন্য ভর্তির ক্ষেত্রে যা যা জানা প্রয়োজন তা নিম্নোক্ত দেওয়া হল:-
ছাত্র যাচাই পর্ব:
আমাদের জামিয়া সম্পূর্ণ আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামাতের আকিদা-বিশ্বাসের উপর পরিচালিত। আল্লাহর বিধান ও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলইহি ওয়াসাল্লামের নববি জীবনাদর্শের নমুনায় তালিম ও তারবিয়াতের লক্ষ্যে জামিয়ার এই আয়োজন। বিধায় সর্ব প্রথম প্রতিটি তালিবুল ইলমকে হতে হবে সঠিক আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামাতের মতাদর্শ লালনকারী এবং সাথে সাথে তার সিরাত-সুরত হতে হবে আকাবিরে আসলাফের রুচিবোধ সম্মত শান্ত, সুষ্ঠ, ন্যায়-নীতিবান ও সাবলিল আচরণবিধি সম্পন্ন একজন সত্যবাদি তালিবুল ইলম। যার প্রতিটি কথা, কাজ এবং চিন্তা-ফিকির হবে নির্ভেজাল। যেখানে কোনো কিছুই অস্পষ্ট থাকবে না। তার যাবতীয় পরিচয় স্বচ্ছ ও নিরাপদ কি না? পূর্বে কোনো প্রতিষ্ঠানে পড়া-লেখা করেছে কি না? সেখান থেকে আসার সঠিক ও সত্য কারণ কি ছিল? এখন কোনো শ্রেণীতে পড়তে ইচ্ছুক? প্রতিষ্ঠানিক যাচাই পরীক্ষার উপর আস্থা-বিশ্বাস আছে কি না? ইত্যাদি বিষয়গুলোর তুলনামুলক বিশ্লেষণের পর আসবে তার ভর্তি কার্যক্রম পর্ব।
ভর্তি কার্যক্রম:
ভর্তি কার্যক্রম যথাযথ সম্পন্ন করার লক্ষ্যে যেসব বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। যথা: ভর্তিচ্ছুক তালিবুল ইলমের পাসপ্রোর্ট সাইজের দুই (০২) কপি ছবি, এন.আই.ডি কার্ড কিংবা জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি এক (০১) কপি, বোর্ড পরীক্ষায় অংশ গ্রহণকারীদের জন্য বোর্ড কর্তৃক প্রকাশিত রেজাল্ট শিটের ফটোকপি এক (০১) কপি সাথে নিয়ে মাদরাসার অফিস থেকে ভর্তি ফরম গ্রহণ করতে হবে। তারপর নির্ধারিত উসতাদের কাছে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তির্ণ হলে পরবর্তি যাবতিয় কার্যক্রম সম্পন্ন করে আলহামদুল্লিাহ মাদরাসার নির্ধারিত বিভাগে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হয়ে যাবে। আর উত্তির্ণ না হলে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মেনে সে অনুযায়ী পরবর্তি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।
ভর্তি ও পরবর্তি প্রদেয়:
ক্রমিক নংবিবরণটাকার পরিমাণ
ভর্তি ফরম২০০/-
ভর্তি ফি১২০০/-
বিদুৎ ফি১০০০/-
বেফাক বোর্ড কুপন২০/-

ইত্তিহাদ বোর্ড [আঞ্চলিক] কুপন
২০/-
আবাসিক ফি কিতাব বিভাগ: ২০০/-
হিফয বিভাগ: ৪৫০/-
নাজেরা: ৪০০/-
মকতব: ৩০০/-
বোর্ডিং খানা খরচ পূর্ণ১৬০০/-
বোর্ডিং খানা খরচ এককালিন১০০০/-

বোর্ডিং খানা খরচ স্পেশাল২৫০০/-
অবশ্য মাদরাসায় লিল্লাহ তথা গোরাবা ফান্ড রয়েছে। বাস্তবেই যদি কেউ এতিম কিংবা আর্থিকভাবে স্বচ্চল না থাকে তাহলে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ যাবতীয় খরচের ক্ষেত্রে যথেষ্ঠ পরিমাণ সাধ্যানুযায়ী তার জন্য বিবেচনা করে থাকেন।
প্রতিটি বিভাগে ছাত্রদের ভর্তির ক্ষেত্রে একটি কোটা নির্ধারিত রয়েছে। মাদরাসার কার্যনির্বাহি পরিষদের পরামর্শ স্বাপেক্ষে প্রতি বৎসর ছাত্রদের অতিরিক্ত চাহিদার কারণে তা পরিবর্তন হয়ে থাকে।